World

বাংলাদেশ ও পাকিস্তান নিয়ে ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রীর মন্তব্যে নিন্দা ইসলামাবাদের
Photo

অনলাইন ডেস্ক:

১৯৪৭ সালে দেশভাগ (ভারত ভাগ) এবং ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের বক্তব্যের নিন্দা জানিয়েছে পাকিস্তান।
এক বিবৃতিতে রাজনাথের মন্তব্যকে অযৌক্তিক ও উসকানিমূলক বলে মন্তব্য করেছে ইসলামাবাদ। শুধু তাই নয়,
 

 

রাজনাথের মন্তব্য পাকিস্তানের বিরুদ্ধে হুমকিও বলে অভিহিত করেছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। খবর ডনের।
ভারতীয় বার্তা সংস্থা এএনআই এক প্রতিবেদনে জানায়, ১৯৭১ সালে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বিজয়
 

 

এবং বাংলাদেশ-ভারত বন্ধুত্ব উদ্‌যাপনে গত রবিবার রাজধানী দিল্লির ইন্ডিয়া গেটে ‘সোনালি বিজয় পর্ব’ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাজনাথ সিং বলেন, বাংলাদেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় ভূমিকা রেখেছে তার দেশ ভারত।

 

রাজনাথ সিং আরও বলেন, ‘মাঝেমধ্যে ভেবে আমি বিস্মিত হই, আমাদের বাঙালি ভাইবোনদের কী দোষ ছিল? 
অধিকার দাবি করা? তাদের শিল্প, সংস্কৃতি ও ভাষা বাঁচিয়ে রাখার চেষ্টা করা? রাজনীতি ও শাসনব্যবস্থায় নিজেদের যথাযথ প্রতিনিধিত্বের জন্য সোচ্চার হওয়া?’

 

অপরদিকে রাজনাথ সিংহকে উদ্বৃত করে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্রতিবেদনে বলা হয়, 
‘ধর্মের ভিত্তিতে দেশভাগ যে একটি ঐতিহাসিক ভুল ছিল, ১৯৭১ সেটাই মনে করিয়ে দিয়েছে। 

 

তখন থেকেই ভারতের বিরুদ্ধে একটা ছায়াযুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছে পাকিস্তান। 
সন্ত্রাসবাদ ও ভারতবিরোধী অপতৎপরতাকে উসকে দিয়ে ভারতের ভাঙন ধরাতে চায় পাকিস্তান।
 

 

১৯৭১ সালে ভারতের সেনারা তাদের পরিকল্পনা নস্যাৎ করেছে, এখনো সন্ত্রাসবাদের মূলোৎপাটনে কাজ করছে আমাদের সাহসী সেনারা। 
আমরা সরাসরি যুদ্ধে জিতেছি, ছায়াযুদ্ধেও আমরা জিতব।’

 

ভারতীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রীর এই মন্তব্যের একদিন পরই সোমবার পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আসিম ইফতিকার আহমাদ বলেন, 
প্রতিষ্ঠিত ঐতিহাসিক সত্য নিয়ে রাজনাথ সিংয়ের অযৌক্তিক ও উসকানিমূলক মন্তব্যের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছে পাকিস্তান। 

 

সন্ত্রাসবাদের প্রেক্ষাপটে এগুলো ভিত্তিহীন অভিযোগ এবং এর মাধ্যমে পাকিস্তানকে হুমকি দিচ্ছে ভারত।
বিজেপিদলীয় ভারত সরকারের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের ওই মন্তব্য নিয়ে আসিম ইফতিকার আহমাদ আরও বলেন,
 

 

এটা ইতিহাসকে ভুলভাবে উপস্থাপন, সবকিছুর নাম বদলে নতুন নাম দেওয়া, 
বিভ্রান্তিকর চিন্তাভাবনার আশ্রয় ও মিথ্যা সাহসিকতায় লিপ্ত হওয়ার মতো বিষয়গুলোয় ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) বিশেষ একটি শক্তি।

 

আসিম ইফতিকার আহমাদ বলেন, ভারতের গুরুত্বপূর্ণ রাজ্যগুলোয় যখন নির্বাচন ঘনিয়ে আসছে, 
তখন এমন বিতর্ক তৈরির বিষয় বিশেষভাবে স্পষ্ট।
 

 

ভারতীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রীর উসকানিমূলক এমন মন্তব্য উত্তর প্রদেশ ও অন্যান্য রাজ্যের নির্বাচনে জিততে মরিয়া বিজেপি-আরএসএস জুটির ক্ষেত্রে অবশ্য আশ্চর্যের কিছু নয়।
তিনি বলেন, বিজেপি নেতাদের যেকোনো কাল্পনিক ও দুঃসাহসিক কাজ থেকে বিরত থাকতে এবং নির্বাচনী ফায়দা তোলার জন্য ভারতের অভ্যন্তরীণ রাজনীতিতে পাকিস্তানকে টেনে আনা বন্ধ করার পরামর্শ দিচ্ছি।

Search

Follow us

Read our latest news on any of these social networks!


Get latest news delivered daily!

We will send you breaking news right to your inbox

About Author

Like Us On Facebook

Calendar