Politics

তেল সংকটের মুখোমুখি পাকিস্তান, নামছে অর্থনীতিতে ধ্বস
Photo


নিউজ ডেস্ক : কোভিড ১৯ এর প্রভাবে পাকিস্তানে  অর্থনৈতিক ক্ষতি পূর্বের সমস্ত অনুমানকে ছাড়িয়ে যাবে বলে দাবি বিশ্বব্যাংকের। খনিজ তেলের সংকটে পড়তে যাচ্ছে দেশটি। চলতি অর্থবছরে দেশটির অর্থনীতি এতটাই ক্ষতিগ্রস্ত হবে, যা পরবর্তী অর্থবছরেও তারা সামাল দিতে পারবে না। 

বিশ্বব্যাংকের হিসাব অনুযায়ী, দেশটি চলতি অর্থবছর (২০১৯-২০২০) এ -২.৬% এবং আগামী অর্থবছর (২০২০-২০২১) -০.২% জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জন করবে। 

অনুমান করা হচ্ছে, এই ক্ষতি পুষিয়ে আনার জন্য পাকিস্তান এবং আফগানিস্তান উভয় দেশই শক্তভাবে তাদের নিজস্ব খরচের খাত সংকুচিত করে আনবে। মূল শ্রম- নির্ভর রফতানি খাতগুলি দ্রুত চুক্তি করবে এবং ধীরে ধীরে অর্থনীতিকে পুনরুদ্ধার করবে। 

১২ এপ্রিল বিশ্বব্যাংকের দেয়া পূর্বাভাস এ দেয়া -২.২% এবং ১.৩% প্রবৃদ্ধি এবং ০.৯পুনরুদ্ধারের ভিত্তিতে দেখতে গেলে পরিস্থিতি আরো নাজুক হচ্ছে। বলা হয়েছিল, চলতি অর্থবছর ২০২০ এর চতুর্থ প্রান্তিকে কোভিড পরিস্থিতি দৃশ্যমান হবে এবং সামগ্রিক প্রবৃদ্ধি -১.৩% এ উন্নীত হবে। কর্তৃপক্ষের সাম্প্রতিক অনুমান, চলতি বছরে প্রবৃদ্ধি -০.৪% হ্রাস পেয়েছে এবং আগামী অর্থবছরে ২.৩% প্রবৃদ্ধিতে ফিরে আসবে। 

ইতোমধ্যে পাকিস্তান মুসলিম লীগের সভাপতি নওয়াজ শরীফ এবং জাতীয় সংসদে বিরোধীদলীয় নেতা শেহবাজ শরীফ দেশে পেট্রোলিয়াম পণ্যাদির ঘাটতি এবং দেশের সার্বিক সমস্যার বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন এবং এটাকে সরকারের ব্যর্থতা বলে দাবি করেছেন। বিরোধীদলীয় নেতা বলেন, সরকারের উচিত পেট্রোলিয়াম সংস্থা গুলির সাথে একটি আলোচনায় আসা এবং তাৎক্ষণিক সমাধান খুঁজে বের করা কারন জনগণ পেট্রোলিয়াম পণ্যের সংকটে ভোগান্তির শিকার হচ্ছে। তার দাবি সরকার পেট্রোলিয়াম সেক্টরে সেই একই ভুলের পুনরাবৃত্তি করছে যা তারা দেশের অর্থনীতি, গ্যাস এবং মার্কিন ডলার বিনিময়ের হারের বেলাতেও করেছিল। 

পিএমএল সভাপতি নওয়াজ শরীফের দাবি, যে সময় করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে জনগণের সামাজিক দূরত্ব মেনে চলা দরকার ছিল, সে সময় পেট্রোলের ঘাটতি পেট্রোল স্টেশন গুলিতে ভিড় বৃদ্ধি করেছিল। তিনি বলেন, পেট্রোলিয়াম পণ্যের দামের ঐতিহাসিক অবনতি সত্ত্বেও সরকার জনগণকে ত্রাণ দিতে পারেনি। তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী বেসরকারি সংস্থাগুলির কাছে আবেদন করেন যাতে তারা সাধারণ জনগণের কাছে সুলভ মূল্যে তেল পৌঁছে দেয় কিন্তু তিনি নিজে এর জন্য কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করেননি। তিনি আরো প্রশ্ন করেন, তেলের দামের ঐতিহাসিক পতন সত্ত্বেও কেন জনগণের কাছে সুলভ মূল্যে বিদ্যুৎ ও গ্যাস পৌঁছে দেয়া হয়নি।

Search

Follow us

Read our latest news on any of these social networks!


Get latest news delivered daily!

We will send you breaking news right to your inbox

About Author

Like Us On Facebook

Calendar